Primary Teachers upper primary news wbssc news

শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আপডেট, দ্রুত পড়ে থাকা নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে !!

SHARE THIS NEWS TO YOUR FRIENDS

আজ শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বিধান সভায় জানিয়েছে যে,যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শূন্যস্থান পূরণ করার চেষ্টা করা হবে এবং যে সমস্ত ইন্টারভিউ ইতিমধ্যেই নেওয়া হয়েছে জুলাই-এর মধ্যে সেগুলোর নিয়োগের কাজ শেষ করা হবে

লোকসভা নির্বাচন এবং কোর্ট কেস এর কারণে বন্ধ ছিল শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া৷ ভোটপর্ব মিটতেই নতুন করে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করেছে রাজ্য৷ শিক্ষক নিয়োগের কাজ দ্রুত শেষ করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে সোমবার বিধানসভায় জানালেন শিক্ষামন্ত্রী৷

ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগের বেপারে আজ বিধান সভায় শিক্ষামন্ত্রী কে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান যে ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকার নেয়নি৷ মুখ্যমন্ত্রী প্রস্তাব দিয়েছিলেন মাত্ৰ।
শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে আবেদনকারীরা বার বার আদালতে গিয়ে মামলা করে নিয়োগ প্রক্রিয়া কে পিছিয়ে দিচ্ছিলেন৷ তাই ইন্টার্ন নিয়োগের চিন্তাভাবনা শুরু হয়েছিল৷ তবে তা এখনও আলোচনাস্তরেই রয়েছে বাস্তবে তার কোনো রূপরেখা শুরু হয় নি।
এই মুহূর্তে উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছে৷ জুলাই মাসের মধ্যে এই প্রক্রিয়া শেষ করার চেষ্টা করা হচ্ছে৷ রাজ্য সরকার অস্থায়ী নিয়োগ করবে না। পড়ে থাকা নিয়োগ প্রক্রিয়া গুলো সম্পন্ন হলে রাজ্য সরকার যোগ্যতার ভিত্তিতে স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ করবে বলেও এদিন বিধানসভায় জানান পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

এবং আগের দেওয়া খবর অনুযায়ী জুলাই আগস্ট মাসে ssc নতুন নোটিফিকেশন বের হওয়ার কথা।যদি পরে থাকা সমস্ত নিয়োগ এর মধ্যে করতে পারে তাহলে।

অপর দিকে প্রাথমিকে কবে টেট নেওয়া হবে সেই বেপারে কোনও দিন ক্ষণ এখনো সামনে আসেনি। এক দিকে প্রাথমিকে নতুন টেট নেওয়ার জন্য মামলা হয়েছে যার শুনানি 27 সে জুন আছে আবার বিভিন্ন নিয়োগ যেমন ppti, ভুল প্রশ্ন মামলা, সংগঠন শিক্ষক,2009 সালের কেস ইত্যাদি সম্পন্ন করে হয়তো বা নতুন টেট এর দিনক্ষণ প্রকাশ করবে রাজ্য সরকার। এখন এই সমস্ত মামলা কোর্টের তত্ত্বাবধানে রয়েছে। কারণ কিছুদিন আগে জানা গিয়েছিল যে কোর্টের মামলা নিষ্পত্তি হওয়ার পর সারপ্লাস শিক্ষকদের বদলি করার পর ভ্যাক্সন্সি দেখে নতুন টেট এর দিনক্ষণ প্রকাশ করা হবে।

এখন প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ এবং নতুন টেট পরীক্ষা কবে সেই দিকে তাকিয়ে থাকবে হাজার হাজার চাকরিপ্রার্থী এবং পরীক্ষার্থী।


SHARE THIS NEWS TO YOUR FRIENDS

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *