রাজ্যে টেট পরীক্ষা একাধিক পরিবর্তন, ট্রেনিং এর নম্বর থেকে ওয়েটিং উঠে যাচ্ছে অনেক বিষয় !

রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া সরলীকরণ করা হচ্ছে বলে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। শনিবার সংবাদমাধ্যমে তিনি জানান, ইতিমধ্যেই এসএসসি ও প্রাইমারি বোর্ডকে এ ব্যাপারে জানানো হয়েছে। অর্থাৎ নতুন যে টেট পরীক্ষা হবে প্রাথমিক এবং উচ্চ প্রাথমিক থেকে মাধ্যমিক সেখানে নতুন নিয়মে হবে পরীক্ষা। তাই দ্রুত এই নিয়ে নোটিশ প্রকাশ করতে চলেছে শিক্ষা দপ্তর।

This Post Contents

নতুন বিধিতে শিক্ষা দপ্তর সবচেয়ে বেশি জোর দিচ্ছে লিখিত পরীক্ষার উপর বা টেট এর উপর।আপনারা জানেন যে লিখিত পরীক্ষার পরও অনেক গুলো ধাপ থাকে যেমন, কাউন্সেলিং, ভেরিফিকেশন, ইন্টারভিউ এবং জয়েনিংয়ের ।সেই সমস্ত ধাপ গুলোকে এবার রিমুভ করা হচ্ছে বলে খবর।

কি কি থাকছে আর কি কি থাকছেনা তার একটি সম্ভাব্য রূপরেখা ::::—-
1) টেট থাকছে
2) ইন্টারভিউ থাকছে না
3) কাউন্সেলিং থাকছে না
4) ভেরিফিকেশন থাকছে না ( চাকরীতে জয়েনিং এর সময় হবে)
5) B.ED এবং D.EL.ED এর নম্বর থাকছে না।

CLICK HERE TO KNOW PRIMARY COURT CASE LATEST NEWS AND UPDATES

সম্ভাব্য যে সমস্ত বিষয় নিয়ে বলা হচ্ছে তাদের মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল ওয়েটিং লিস্ট না রাখা ,যতজনকে পাস করবে তত জনকে চাকরি দেওয়া । কারণ ইদানিং লক্ষ্য করলে দেখা যাবে যে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হয়েছে ওয়েটিং লিস্টে থাকা চাকরি প্রার্থীদের কে নিয়ে তারা বিক্ষোভ, অনশনে ,আন্দোল করার ফলে সমস্যা তৈরি হয়েছে। তাই রাজ্য সরকার এই পদ্ধতি তুলে দিতে চাইছে বলে মনে করছে শিক্ষামহল।

CLICK HERE TO UPPER PRIMARY LATEST NEWS AND UPDATES

আর একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে দেওয়া হচ্ছে সেটা হচ্ছে ট্রেনিং এর প্রাপ্ত নম্বর না থাকা। কারণ এখন প্রশিক্ষণ ছাড়া কেউ আর টেট পরীক্ষায় বসতে পারবেন না। তাই B.ED এবং D.EL.ED জন্য আলাদা করে নম্বর ধার্য করার কোনও দরকার নেই বলেই শিক্ষামন্ত্রী মনে করেন।

তাছাড়া, অ্যাকাডেমিক কোয়ালিফিকেশন খাতে কার কত নম্বর তা পর্ষদ এর কাছে জমা থাকবে তাই আলাদা করে সেই খাতে নম্বর ধার্য করার যুক্তিও নেয় বলে মনে করা হচ্ছে।

ফলে এই নোটিশ দ্রুত প্রকাশিত হলে নতুন টেট পরীক্ষা দ্রুত হবে। তাই রাজ্যের বেকার যুবক যুবতিরা এখন ওই নোটিশ এর দিকে তাকিয়ে আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here