[3929]Primary 2014 Non Included Recruitment-মেধা এবং যোগ্যতার নিরিখে নিয়োগ ! ১১৭৬৫ থেকে ৩৯২৯টি পদ সংরক্ষণ ! very big news

6
201

Primary 2014 Non Included Recruitment- ২০২২ সালের নতুন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়ােগ প্রক্রিয়ার জন্য ঘােষিত ১১,৭৬৫ শূন্য পদ থেকে ৩,৯২৯টি পদ ২০১৪ সালের প্রাথমিক টেট উত্তীর্ণদের জন্য সংরক্ষিত করা হয়েছে বলে প্রাথমিক পর্ষদ সাভপতি জানিয়েছেন।বাকি ৭,৭৩৮টি পদের জন্য যে কোনও বছরের টেট উত্তীর্ণ এবং ট্রেন্ডরা যােগ্যতার নিরিখে আবেদন করতে পারবেন।হাই কোর্টের নির্দেশে ৩৯২৯টি শূন্যপদ ২০১৪ সালের প্রাথমিক টেট উত্তীর্ণদের জন্য সংরক্ষিত করল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ।

প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল জানিয়েছেন, “১১৭৬৫টি-র মধ্যে কিছু শূন্যপদ অন্য কয়েকটি মামলায় হাই কোর্টের নির্দেশ পালনের জন্য সংরক্ষিত রয়েছে। ৩৯২৯টি শুন্যপদ সংরক্ষণের পর পর্ষদের হিসাবে বাকি থাকা ৭৭৩৮টি শূন্যপদে নিয়ােগের প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন যে কোনও বছরে টেট উত্তীর্ণ ও যােগ্যতা রয়েছে এমন চাকরিপ্রার্থীরা। এর ফলে ২০১৪ নন ইনক্লুডে (Primary 2014 Non Included Recruitment) চাকরি প্রার্থীদের ফের ভাগ্য খুলতে চলেছে।

Primary 2014 Non Included Recruitment

Primary 2014 Non Included Recruitment
Primary 2014 Non Included Recruitment

এ দিনের ডিভিশন বেঞ্চের রায়ের পরে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল সাংবাদিক বৈঠক করে জানান, মোট ১১,৭৬৫টি শূন্য পদের মধ্যে ৩৯২৯টি পদ ২০১৪-র টেট পাশ করা প্রার্থীদের জন্য সংরক্ষণ করা হয়েছে। ওই পদে আলাদা ভাবে নিয়োগ প্রক্রিয়া চালাবে প্রাথমিক পর্ষদ। এর জন্য খুব শ্রীঘ্ররই নোটিশ দেওয়া হবে। বাকি পরে থাকা ৭৭৩৮টি পদে সংরক্ষণ নেই। তাই এই ৭৭৩৮ টি শূন্য পদে যে কোনও সালের টেট উত্তীর্ণরা আবেদন করতে পারবে। অর্থাৎ পর্ষদ সভাপতির কথা অনুসারে এই শূন্য পদে ২০১২,২০১৪ এবং ২০১৭ সালে টেট পাশ করা প্রার্থীদের শিক্ষক নিয়োগের জন্য আবেদন করতে পারবে!

গতকালে বিচারপতি সুব্রত তালুকদার ও বিচারপতি সুপ্রতিম ভট্টাচার্যর ডিভিশন বেঞ্চ নির্দেশ দিয়েছেন,৩৯২৯টি শূন্যপদ কেবল ২০১৪ সালের টেটের ভিত্তিতে নিয়োগ করতে হবে এবং এই নিয়োগ হবে মেধা এবং যোগ্যতার নিরিখে !

গতকালে পর্ষদ ২০১৪ সালের প্রায় ১ লক্ষ ২৬ হাজার এবং ৮২ পেয়ে পাস করেছে এমন ৭৭৬৫ জনের রেজাল্ট প্রকাশ করেছে। সেই রেজাল্ট দেখতে এবং প্রায় ১ লক্ষ ৩৪ হাজারের নিরিখে নিজের রেঙ্ক দেখতে হলে এখানে ক্লিক করুন।

2014_Primary_TET_Result_with_Marks
2014_Primary_TET_Result_with_Marks(Primary 2014 Non Included Recruitment- ফাইল ছবি)

ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশ মেনেই এদিন প্রাথমিক পর্ষদ ৩৯২৯টি শূন্যপদ ২০১৪ সালের টেট উত্তীর্ণদের জন্য সংরক্ষণ করে । একইসঙ্গে পর্ষদ সভাপতি জানিয়েছেন, হাই কোর্ট মেধার ভিত্তিতে নিয়োগের যে নির্দেশ দিয়েছে তা তাঁরা পালন করবেন। তাই মেধা যাচাইয়ে জন্য ৩৯২৯ শূন্যপদের জন্য আলাদা নিয়োগ প্রক্রিয়া পরিচালনা করবে পর্ষদ। ২০১৪ সালের টেট উত্তীর্ণ ও নিয়োগের অন্যান্য যোগ্যতামান পূরণকারী প্রার্থীদের থেকে আবেদন গ্রহণ করা হবে।

Primary 2014 Non Included Recruitment
Primary 2014 Non Included Recruitment(file image)

[Marks]WB Primary TET 2017 result with marks-Click Here

তারপর ইন্টারভিউ ও এনসিটিই গাইডলাইন মেনে নিয়োগ প্রক্রিয়া পরিচালনার মাধ্যমে মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে। সেই মেধাতালিকা অনুযায়ীই নিয়োগ করা হবে ২০১৪-র টেট উত্তীর্ণদের (Primary 2014 Non Included Recruitment) ঐ ৩৯২৯ শূন্য পদে।পর্ষদ সাভাপতি গৌতম পাল বলেন,”শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর উপদেশ ও হাই কোর্টের নির্দেশ মেনে ২০১৪ সালের টেট উত্তীর্ণ যাঁরা চাকরি পাননি, তাঁদের মধ্যে থেকে মেধা অনুসারে ৩৯২৯ শূন্যপদে নিয়োগ দেবে পর্ষদ।”

মাননীয় বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় RTI মামলা থেকে ২০১৪ সালের ২৫২ জন টেট উত্তীর্ণকে সরাসরি নিয়োগের নির্দেশ দিয়েছিলেন। তা আজ খারিজ করে দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ। ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে সরাসরি নয়, যোগ্যতার ভিত্তিতেই নিয়োগ করতে হবে ঐ পরে থাকা প্রায় ৩৯২৯টি শূন্যপদে।

কিছুদিন আগেই পর্ষদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানায় ১১৭৬৫টি শূন্যপদে 2014 এবং 2017 টেট পাস এবং ট্রেন্ড ক্যান্ডিডেটদেরকে নিয়োগ করা হবে। এর জন্য একটি নির্দিষ্ট পোর্টাল ও চালু করে পর্ষদ। সেই পোর্টালে আবেদনের শেষ তারিখ হচ্ছে ১৪ই নভেম্বর অব্দি। কার্যত ডিভিশন বেঞ্চের নতুন নির্দেশ আসায় ঐ নিয়োগ পোর্টালের অস্তিত্ব নিয়ে এবার প্রশ্ন থাকবে! ঐ ১১৭৬৫টি শূন্যপদে মধ্যে ৩৯২৯টি ১৬৫০০ নিয়োগ প্রক্রিয়ায় পরে থাকা শূন্যপদ ক্যারি ফরওয়ার্ড করা হয়েছিল।

এবার ডিভিশন বেঞ্চের রায় অনুসারে এই ৩৯২৯টি শূন্যপদের প্রকৃত হকদার ২০১৪ সালের চাকরিপ্রার্থীরা। গতকালকে ২০১৪ সালের টেটের রেজাল্ট প্রকাশিত করেছে প্রাথমিক পর্ষদ। সেখানে দেখা যাচ্ছে ৮৩ এবং তাঁর চেয়ে বেশি নাম্বার নিয়ে পাস করেছে প্রায় ১ লক্ষ ২৬ হাজার এবং শুধু ৮২ নিয়ে পাস করেছে প্রায় ৭৭৬৫ জন চাকরিপ্রার্থী। ফলে সবমিলিয়ে প্রায় ১ লক্ষ ৩৪ হাজার টেট পাস করেছে 2014 সালের টেট পরীক্ষা থেকে। এঁদের মধ্যে দু’দফায় প্রায় ৫৬ হাজার প্রার্থীর নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এর ফলে হিসাব অনুসারে বাকি থেকে গিয়েছে প্রায় ৭০ হাজার প্রার্থী।

Primary 2014 Non Included Recruitment-এর ফলে ঐ ৩৯২৯টি শূন্যপদে এবার প্রতিযোগিতা হবে প্রায় ৭০ হাজার প্রার্থীর মধ্যে। কারণ কোর্ট স্পষ্ট নির্দেশ দিয়েছে সকল ২০১৪ টেট পাস এবং ট্রেন্ড ক্যান্ডিডেটরা ঐ শূন্যপদে মেধার এবং যোগ্যতার ভিত্তিতে নিয়োগ পাবে। এর ফলে টেট ২০১৭ উত্তীর্ণ প্রায় ১০ হাজার প্রার্থীর জন্য শূন্যপদ কমে দাঁড়ালো প্রায় ৭,৭৩৮টি । এই নিয়ে চিন্তিত ২০১৭ সালের টেট উত্তীর্ণ প্রায় ১০ হাজার চাকরিপ্রার্থীরা। কারণ শুধু এই ৭,৭৩৮টি(প্রায়) শূন্য পদে ২০১৭ রা নন, বাকি সকল টেট (২০১২,২০১৪,২০১৭) উত্তীর্ণরা আবেদন করবে নিয়োগের জন্য।

For latest notice,court order Primary Court Case-Click Here

6 COMMENTS

  1. One who passed 2014 Tet but couldn’t take D.L.ED Certificate could they find recuitment? And there was no notifications given for compulsory DLED to recruit in 2014.

  2. My name is mousumi kundu.roll no 140065873..candidate of 2014.bt when i put up roll no..then it is no found..very strenge.plz help me.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here