শীর্ষ আদালতের রায়,পরীক্ষায় পাস করার জন্য সংরক্ষণ কাম্য নয়

NEWS-2020
NEWS-2020

পরীক্ষায় সফল হওয়ার ক্ষেত্রে কোনও রকম সংরক্ষণ ব্যবস্থা চালু থাকতে পারে না, স্পষ্ট ভাবে শীর্ষ আদলাত তা জানিয়ে দিল । সুপ্রিম কোর্ট এক প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ মামলায় এই কথা জানিয়ে দিল ।

আর্থিক ভাবে দুর্বল সম্প্রদায়ের মানুষের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ এর দাবি জানিয়ে মামলা করা হয় সুপ্রিম কোর্টে । ২০১৯ সালে সি-টেট পরীক্ষায় সংরক্ষণ নিয়ে মূলত দাবি করে মামলাকারী ।

 

বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিচারপতি সঞ্জীব খান্না কে নিয়ে গঠিত সুপ্রিমকোর্টের এক বেঞ্চ এদিন স্পষ্ট জানায় যে,” একমাত্র ভর্তির সময় কোনও নিদিষ্ট সম্প্রদায় এর সুবিধা পেতে পারেন । পরীক্ষায় পাস করার জন্য সংরক্ষণ এর কোনও সুবিধা কাম্য নয় । যদি এটা হয় তবে পরীক্ষার পুরো উদ্দেশ্যটায় ব্যর্থ হয়ে যাবে ।

সি-টেট হল একটি যোগ্যতা অর্জনের একটি পরীক্ষা । সেখানে এই সংরক্ষণ কোনও ভাবেই কাম্য নয় ।

সিটেট এর বিজ্ঞপ্তির কথা এদিন আদলতে তুলেন  আবেদনকারীর আইনজীবী । কিন্তু তা আদালত খারিজ করে জানান যে ওই বিজ্ঞপ্তিতে কোথাও তপসিলি জাতি,উপজাতিদের জন্য সংরক্ষণের কথা বলা হয় নি ।
তবে এই মামলাটি আবার ১৬ ই মে উঠবে সেই দিন আবেদনকারী নিজেদের বক্তব্য পেস করবেন । রজনিশ কুমার পাণ্ডে আদালতে মামলা করেন ,তিনি জানান যে তপসিলি জাতি,উপজাতি এবং পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায়ের জন্য সংরক্ষণের সুবিধা থাকলেও আর্থিক ভাবে দুর্বলদের জন্য কিছু বলা হয় নি ।

 

চলতি বছর কেন্দ্র সরকার আর্থিক ভাবে দুর্বলদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ এর সুবিধা ঘোষণা করেছে । তাঁর জন্য সংবিধান সংশোধন করা হয়েছে ।
এখন দেখার বিষয় ১৬ মে শীর্ষ আদালত এই বিষয়ে আর কোনও মন্তব্য করে কি না ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here