{WB TET OMR}২০১৪ সালের টেট পরীক্ষার ওএমআর শিট সংক্রান্ত মামলায়! ‘আকাশচুম্বী দুর্নীতি’, রিপোর্ট দেবে সিবিআই!

0
3460

বিভিন্ন মামলায় তাঁর পর্যবেক্ষণ এবং রায় জনমানসে আলোড়ন ফেলেছে। আন্দোলিত হয়েছে রাজ্য রাজনীতি। কলকাতা হাই কোর্টের সেই বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এজলাসে আবার এক বার ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করলেন। মঙ্গলাবর প্রাথমিক শিক্ষা সংক্রান্ত (WB TET OMR) একটি মামলার শুনানি ছিল তাঁর এজলাসে। সেই শুনানি শেষে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় মন্তব্য করেন, ‘‘আর তো ক’টা দিন আছি। তার পর চলে যেতে হবে। যাওয়ার আগে কিছু করে যাব।’’ উল্লেখ্য, আগামী বছরের অগস্টে মাসে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় অবসর নেবেন।

WBBPE_Chairman_2023
WB TET OMR

তাঁর এই মন্তব্য শুনে এজলাসে উপস্থিত আইনজীবী কল্লোল বসু হাসির ছলে বলেন, ‘‘বিপ্লব দীর্ঘজীবী হোক।’’ জবাবে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় ওই আইনজীবীর উদ্দেশে বলেন, ‘‘বিপ্লব দীর্ঘজীবী হতে হবেই।’’

ইন্টারভিউ দিতে হবে না ৩২০০০ প্রাথমিক শিক্ষকদের!বাতিল হচ্ছে না ৩২ হাজার শিক্ষকের চাকরি! স্থগিতাদেশ দিল আদালত!

বাইশ বছর আগে আমেরিকায় ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার ধ্বংসের অভিঘাতে নড়ে গিয়েছিল পৃথিবী। এ বার কি ওই তারিখেই কলকাতা হাই কোর্টে প্রাথমিক দুর্নীতির তদন্ত নিয়ে কোনও বিস্ফোরক তথ্য আনবে সিবিআই? রাজ্যের শিক্ষাক্ষেত্রে নিয়োগ দুর্নীতি আমেরিকার ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের সমতুল বলে কলকাতা হাই কোর্টে দাবি করল সিবিআই।

WB TET OMR
(WB TET OMR)

মঙ্গলবার কলকাতা হাই কোর্টে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে চলছিল নিয়োগ সংক্রান্ত একটি মামলার শুনানি। সেখানে হাজির ছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। যে সিবিআইকে নিয়োগ মামলার একের পর এক তদন্তভার দিয়েছিলেন বিচারপতি। মঙ্গলবারও তেমনই একটি মামলায় ২০১৪ সালের টেটের ওএমআর শিটের মামলায় সিবিআই তদন্তের অগ্রগতি জানতে চেয়েছিলেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। এ ব্যাপারে মুখ বন্ধ খামে যাবতীয় তথ্য আগামী ১১ সেপ্টেম্বর দুপুর ৩টের মধ্যে পেশ করতে বলেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। তারই প্রেক্ষিতে সিবিআই আর বিচারপতির কথোপকথনে হঠাৎ উঠে আসে আমেরিকার ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার (বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্র)-এর জোড়া ইমারতের প্রসঙ্গ।

{ব্রেকিং নিউজ} পর্ষদ সভাপতি ২০২২ সালের ১১৭৬৫ নিয়োগ সংক্রান্ত আপডট! ২০১৪ এবং ২০১৭ সালের টেট পাস নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য!

২০১৪ সালের প্রাথমিক টেটকে কেন্দ্র করে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। আদালতে নজরদারিতেই সেই তদন্ত চলছে। এর আগে অনেকবার তদন্তে গাফিলতির জন্য বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের তোপের মুখে পড়তে হয়েছে সিবিআইকে। এবার সেই মামলাতেই নয়া মোড়। এদিন মামলার শুনানি চলাকালীন সিবিআইয়ের তরফে ডেপুটি সলিসিটর জেনারেল বিচারপতিকে বলেন, ‘ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের সমান বিশাল দুর্নীতির খতিয়ান নিয়ে আমরা ১১ সেপ্টেম্বর এজলাসে এসে হাজির হব হুজুর।’ জবাবে বিচারপতিও পাল্টা মন্তব্য করেন, ‘দুর্নীতি যদি ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের সমান হয়, তা হলে তো অবিলম্বে তা ভেঙে ফেলা দরকার।’

WB TET OMR

এখানে ক্লিক করুন প্রাথমিক পর্ষদের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করতে!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here