EDUCATIONAL NEWS

NRC ভীতি দ্রুর করতে অনলাইনে এবার 1975 সালের আগের ভোটারের তথ্য দেওয়া নিয়ে ভাবনা

SHARE THIS NEWS TO YOUR FRIENDS

NRC নিয়ে কিছু দিন ধরেই রাজ্যের মানুষ খুবই চিন্তিত।কারণ প্রতিবেশী রাজ্য অসমে যে ভাবে NRC নিয়ে সাধারণ মানুষের হয়রানির হয়েছে সেটা নিয়ে খুব বেশি ভালো অভিজ্ঞতা নেই এই রাজ্যের মানুষের কাছে। এর উপর আবার জাতীয় রাজনৈতিক নেতাদের বক্তব্য আরও চিন্তা বাড়িয়েছে পশ্চিমবঙ্গের মানুষের কাছে। যদিও পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই পরিস্কার ভাবে জানিয়েছেন যে, পশ্চিমবঙ্গের কোনও মতেই NRC লাগু করতে দেওয়া হবে না । তবুও আতঙ্ক যাচ্ছে না।

এই  সমস্ত বিষয়ের মাঝে ,গরিব সাধারণ  মানুষের কষ্ঠের সীমা নেই। তারা বুঝে উঠতে পারছে না কি করে এই সমস্ত ডকুমেন্ট সংগ্রহ করবে। সম্প্রতি খাদ্য দপ্তরের উদ্যোগে রেশন কার্ড সংশোধন করার কাজ ও ভোটার কার্ড ভেরিফিকেশনের কাজ শুরু হয়। তারপর সেই কাজ করতে গিয়ে রাজ্যের বিভিন্ন জেলার বিডিও অফিস গুলিতে সাধারন মানুষের ভিড় বেড়েছে।

অপর দিকে মধ্যবিত্ত শিক্ষিত মানুষেরা এসে ভিড় জমাচ্ছে ডিরেক্টরেট অফ আর্কাইভ দপ্তরে। কি এই ” ডিরেক্টরেট অফ আর্কাইভ ” দপ্তরে ?

এই দপ্তরটি হল দেশের সমস্ত পুরাতন তথ্য এই দপ্তরে সংরক্ষন করে রাখা হয়। এখানে সাধারণ মানুষের ভিড় বাড়ছে কারণ তাঁরা এখানে এসে তাঁদের পূর্ব পুরুষের ভোটার তালিকা যাচাই করে নিচ্ছে । যাতে NRC হলে কোনও সমস্যায় পরতে না হয় সেই জন্য। কিন্তু প্রত্যেক দিন এই দপ্তরে লোকের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে তথ্য যাচাইয়ের জন্য তাই তাঁরা ঠিক করেছে যে ভোটার তালিকায় সমস্ত তথ্য এবার তাঁরা অনলাইনে UPLOAD করে দেবে । ফলে সাধারণ মানুষের অনেক সুবিধা হবে এতে।

খবরে প্রকাশিত তথ্য অনুসারে ১৯৫২, ১৯৫৬, ১৯৬১, ১৯৬৬, ১৯৬৮, ১৯৭১ ও ১৯৭৫ সালের ভোটার তালিকা প্রকাশের উদ্যোগ নিচ্ছে আর্কাইভ দফতর।
কবে থেকে পাবেন এই সুবিধা ??
জানা গিয়েছে যে,সব কিছু ঠিক ঠাক থাকলে পুজোর ছুটির পরেই এই সুবিধা পাওয়া যাবে।

কিভাবে পাবেন এই সুবিধা ???
জানা গিয়েছে অনলাইনে  আর্কাইভ দফতর দপ্তরের ওয়েবসাইট খুললেই মিলবে এই নির্দিষ্ট তথ্য।
তবে শুধু অনলাইনে যে কোনও ব্যাক্তি নিজের পূর্ব পুরুষের তালিকায় নাম আছে কিনা সেটা জানতে পারবেন। নাম থাকলে  সার্টিফাইড কপির জন্য আবেদনও অনলাইনে করা যাবে। তবে ঐ সার্টিফিকেট অফিসে এসে নিতে হবে।

সার্টিফিকেট নিতে হলে আবেদনের সময় আবেদনকারীর ভোটার কার্ড প্যান কার্ড অথবা আধার কার্ড অবশ্যই সঙ্গে আনতে হবে। পাশাপাশি তার ফটোকপি ও লাগাতে পারে।
পরবর্তী ক্ষেত্রে অনলাইনে কিভাবে চেক করবেন সেটা আপনাদেরকে  দেখানো হবে তাই এই ওয়েবসাইটটি নিয়মিত ভিজিট করুন।


SHARE THIS NEWS TO YOUR FRIENDS

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *