কলকাতা হাইকোর্টের আইসিডিএস সুপারভাইজার নিয়োগ নিয়ে বিরাট রায়

কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি দীপঙ্কর দত্ত ও বিচারপতি সৌগত ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে মঙ্গলবার দিন একটা গুরুত্বপূর্ণ রায় দিয়েছেন আইসিডিএস বা সুসংহত শিশু বিকাশ প্রকল্পে সুপারভাইজার নিয়োগের পরীক্ষার জন্য। ডিভিশন বেঞ্চে কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে যে শুক্রবারের মধ্যে ওই কর্মীদের পদোন্নতির পরীক্ষায় বসার ফর্ম পূরণ করার সুযোগ দেওয়ার জন্য।

এই দিকে কোর্টে কর্মবিরতি চলায় বিপাকে পড়েন ওই মামলাকারীরা ।তাঁরা নিজেদের হয়ে নিজেরায় সাবাল করেন ।

গত ৭ মার্চ রাজ্য সরকার বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানায় যে সমস্ত অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীচারী বর্তমানে কাজের সঙ্গে যুক্ত তাঁরা আইসিডিএস প্রকল্পে সুপারভাইজার নিয়োগের পদে প্রোমোশন এর ক্ষেত্রে অনলাইনে ফর্ম পূরণ করতে পারবেন । কিন্তু মামলাকারীরা যখন অনলাইনে ফর্ম পূরণ করলেও তাঁদের আবেদন গ্রাহ্য হয়নি আইসিডিএস-কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দেন, যে-হেতু স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা তাঁদের নিয়োগ করেছে, সেই জন্য তাঁরা পদোন্নতির ওই পরীক্ষায় বসতে পারবেন না,ফলে তাঁরা কোলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেন ।

বিচারপতি অমৃতা সিংহ গত ১ মে তাঁদের আবেদন খারিজ করে দিয়ে জানান, ৩০ এপ্রিল আবেদন করার সময়সীমা পেরিয়ে গিয়েছে। এবং কারন হিসাবে বলা হয় যে তাঁরা ঠিক সময়ে কোর্টে আবেদন করেননি ।


বিচারপতি সিংহের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ডিভিশন বেঞ্চে আপিল আবেদন করেন আট জন অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী। ডিভিশন বেঞ্চ এ দিন মামলার নিষ্পত্তি করেন এবং জানান যে কোর্টে যে ডকুমেন্টস জমা হয়েছে তাতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে যে ,আইসিডিএসের পরিচালক, পশ্চিমবঙ্গের 03 মে তারিখে একটি লেখা নোটিশ দিয়েছেন এবং সেখানে 06 মে, 2019 থেকে 10 মে , 2019 পর্যন্ত অনলাইনে জমা দেওয়ার সময় বাড়িয়েছে আইসিডিএসের সুপারভাইজারদের নির্বাচন করার জন্য । তাই কোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চের পূর্বের আদেশ যে যে সঠিক সময়ে কোর্টে আবেদন করা হয় নি সেটাকে ডিভিশন বেঞ্চ খারিজ করে দিয়ে বলেছে যে শুক্রবারের মধ্যে ওই কর্মীদের পদোন্নতির পরীক্ষায় বসার ফর্ম পূরণ করার সুযোগ দেওয়ার জন্য।


এই মামলার পরবর্তী শুনানি ধার্য হয়েছে ২১ মে।

এর মধ্যেই কোলকাতা হাইকোর্টের কর্মবিরতির মেয়াদ আরও এক সপ্তাহ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্য বার কাউন্সিলের এ দিনের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, ২১ মে পর্যন্ত কর্মবিরতি চালিয়ে যাওয়া হবে। কবে আইনজীবীরা ফের কাজে যোগ দেবেন, সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে ২১ তারিখে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here