ভুলে যান পে কমিশন পে প্রোটেকশন ,কাজের ভিত্তিতে বাড়বে বেতন, চাকরিও টিকিয়ে রাখাও হবে সমস্যা !

NEWS-2020
NEWS-2020

হ্যাঁ বন্ধুরা আপনারা প্রথমে হেড লাইন দেখে হয়তো বা চমকে গিয়েছে,কিন্তু এমনটাই হতে চলেছে ! বেতন কমিশন তুলে দেওয়া হবে, এমন কানাঘুষো অনেক আগেই শোনা যাচ্ছিল। এবার ফের একবার সেই রকম চমকে দেবার মতন খবর সামনে এসেছে।

পে কমিশনের বদলে তাঁর জায়গা নিতে পারে নতুন সিস্টেম । জানা যাচ্ছে যে “অ্যাকরয়েড ফর্মুলাতে” এবার সরকারি কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি করা হবে। এই বেতন বৃদ্ধির সূত্রের অধীনে বেতন বৃদ্ধির পরিমাণটি পারফরম্যান্স-পাশাপাশি মুদ্রাস্ফীতি ভিত্তিক হবে । পণ্যগুলির মধ্যে দামের ওঠানামার উপর নির্ভর করবে এবার বেতনের হার। থাকবে রেটিং দেওয়ার ব্যবস্থা । ‌যাঁদের রেটিং নিম্নসীমার নিচে থাকবে, তাঁদের ছাঁটাই করাও হতে পারে  বলে জানা গিয়েছে ! আরও জানা গিয়েছে যে , এই ফর্মুলায় বেতন বৃ্দ্ধি হার নির্ভর করবে চাকরীকারির পারফরম্যান্সের উপর।

তাহলে সপ্তম পে কমিশনই কি হবে শেষ পে কমিশন আর অষ্টম পে কমিশন হবে না ? যা জানা যাচ্ছে সম্ভবত এটাই হতে চলেছে !

Justice A.K. Mathur জিনি  সপ্তম পে কমিশনের মাথা ছিলেন তিনি জানিয়েছিলেন যে , কর্মীদের নতুন বেতন কমিশনের জন্য ১০ বছর অপেক্ষা করানো ঠিক নয় প্রত্যেক বছরই বেতন পরিবর্তন করা উচিৎ। অর্থাৎ মুদ্রাস্ফীতি বৃ্দ্ধি সঙ্গে সঙ্গে বেতন বৃ্দ্ধি হওয়া দরকার, বেতন বৃদ্ধির জন্য দশ বছরের  অপেক্ষা করা কোনও মানে হয় না ।

কি এই অ্যাকরয়েড ফর্মুলা ??

 আইক্রয়েড সূত্র, যা দেশের জীবনযাত্রার প্রাথমিক গড় ব্যয়কে প্রতিফলিত করে, যাতে সাধারণ মানুষ খেয়ে পড়ে সুস্থ এবং স্বাভাবিকভাবে বেঁচে থাকতে পারে। চেষ্টা করা হয়েছে এই পদ্ধতিতে একটা  উপযুক্ত বেতনের প্যাকেজে পৌঁছে দেওয়ার যাতে জীবনের প্রয়োজনীয় জিনিসগুলি আরামে পাওয়া যায় । 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here