প্রশ্ন ভুলের খেসারত, উত্তরদাতা TET পরীক্ষার্থীদের ৭ দিনে নিয়োগের নির্দেশ

0
31

টেট ২০১৫ ভুল প্রশ্ন মামলা থেকে এবার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ করার জন্য করা নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। প্রায় 1 বছর ধরে তাঁদের,মামলাকারী উত্তর দাতা দের খাতা কেন মূল্যায়ন করা হল না এই নিয়ে করা অবস্থান নেয় কোর্ট।

1 1

গতকাল বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টে উঠেছিল ২০১৫ টেট ভুল প্রশ্নও আদালত অবমাননার মামলা,সেখানে বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের চেয়ারম্যান রত্না চক্রবর্তীকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল, তা আগামী বৃহস্পতিবারের মধ্যে পালন করে আদালতে রিপোর্ট দাখিল করুন না হলে খুব কড়া পদক্ষেপ
নেওয়া হবে !!

আরও পড়ুন :- নির্দেশ অমান্য করায় ক্ষুব্ধ সুপ্রিম কোর্ট, শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে বড়সড় বিপদের মুখে পর্ষদ !!

একটি পত্রিকায় প্রকাশিত খবর অনুসারে গতকাল ,পর্ষদ আদালতের নির্দেশ অনুসারে কমবেশি ১৭৫ জনের একটি তালিকা তৈরি করেছে। যা আদালতে পেশও হয়েছে। কিন্তু এই কেসে প্রায় ৫০০ জনের নাম আছে বলে জানা গিয়েছে। আসতে আসতে সমস্ত মামালাকারী দের খাতা পুনঃমূল্যায়ন এর কাজ চলছে যা আগামী ২৬ তারিখে জমা পরতে পারে বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন :- প্রাথমিক পর্ষদ নিয়োগ করা নিয়ে কি জাণালো,কবে হবে নিয়োগ ? দেখুন ।।

২০১৪ সালের টেট এর বিজ্ঞপ্তি এবং ২০১৫ সালে পরীক্ষার হয়। সেখানে প্রায় কম বেশি ৩৫-৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ ইতিমধ্যে হয়েছে। ঐ পরীক্ষায় কিছু ভুল প্রশ্ন নিয়ে আদালতের দারস্থ হয় কিছু মামলাকারী। সেখানে আদালত গত ৩রা অক্টোবর ২০১৮ সালে মামালাকারী দের পক্ষে রায় দেয় এবং সাতটি প্রশ্ন বা প্রশ্নের সম্ভাব্য উত্তরে পূর্ণ অথবা আংশিক ভুল ছিল। আদালত বলেছিল, যে প্রশ্নের সবটাই ভুল, তার জন্য মামলাকারীরা নম্বর পাবেন। যে প্রশ্নে বা তার সম্ভাব্য উত্তরে আংশিক ভুল ছিল, সেখানে যে মামলাকারীরা উত্তর দিয়েছেন, তাঁরাও নম্বর পাবেন। সেখানে দেখা গিয়েছিল যে ৬টি প্রশ্নের উত্তর ভুল ছিল এবং একটি প্রশ্নের উত্তর নিয়ে আংশিক ভুল বা দ্বিমত ছিল।

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে সমস্ত মামলা এবং আপডেট দেখতে এখানে ক্লিক করুন ।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here