কোর্ট কেসের জন্য চাকরী খোয়াচ্ছেন প্রায় ১০,৩২৩ শিক্ষক !!

0
28

একদিকে করোনার জন্য লকডাউন চলছে গোটা দেশে। করোনার জেরে পরিস্থিতি বেসামাল।এই দিকে ঐ লকডাউনের সময় একটা খুবই খারাপ খবর বেরিয়ে এসেছে । সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে বহু আগেই তাঁরা চাকরী হারিয়েছেন । কিন্তু তাঁরা এডহোক ভিত্তিতে চাকরী চলছিল তাঁদের। 

আপনারা জানেন যে বাম আমলে ২০১০ সালে শিক্ষক নিয়োগ করে ত্রিপুরা সরকার। সেই নিয়োগ নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ উঠে।দায়ের করা হয় মামলা।২০১৪ সালে গুয়াহাটি হাইকোর্ট রায় দেয় যে ঐ নিয়োগ অবৈধ।তখন রাজ্যের বামফ্রন্ট সরকার দেশের সর্বচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হয়। সুপ্রিম কোর্ট ঐ বাম আমলে জানিয়েদেয় নিয়োগ  অবৈধ । ২০১৭ সালেই চাকরী খোয়ান ঐ শিক্ষকরা।

কিন্তু রাজ্য সরকার তখন এডহোক ভিত্তিতে নিয়োগ করে তাঁদের। এবং তাঁদের ৩১ সে মার্চ ২০২০ অব্দি সময়সীমা দেওয়া হয়। এখন মাহাবিপাকে ঐ সমস্ত শিক্ষকরা।

সুপ্রিম কোর্ট শুক্রবার আবেদনকারীদের এবং রাজ্য সরকারের বক্তব্য শোনে।রাজ্য সরকারকে লিখিত ভাবে তাঁদের বক্তব্য জানতে বলেছে সুপ্রিম কোর্ট। আবেদনকারীরা  আরও কিছু মাস সময় চেয়েছেন কোর্টের কাছে। এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে আবার চার সপ্তাহ পরে।  

court order
court order

এর মাঝে এক বার খবর উঠে এসেছিলো ,যে ঐ সমস্ত শিক্ষককে অ-শিক্ষক কর্মচারী পদে নিয়োগ করা হতে পারে ! কিন্তু এখন পুর বিষয়টি সুপ্রিমকোর্টের তত্ত্বাবধানে। এর ফলে এখন সুপ্রিম কোর্ট কি নির্দেশ দেয় সেই দিকে তাকিয়ে আছেন  ঐ প্রায় ১০,৩২৩ জন শিক্ষক। 


TO READ PRIMARY TET RECRUITMENT AND COURT CASE NEWS,PLEASE CLICK HERE

TO READ UPPER PRIMARY TET RECRUITMENT AND COURT CASE NEWS, PLEASE CLICK HERE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here