Primary Teachers

পে বেন্ড 2 এবং পে বেন্ড 3 জোট কবে কাটবে? বেতন বৃদ্ধি হলেও বেতন বৈষম্য থেকেই যাচ্ছে !

প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বাড়ানো নোটিশ জারি করা হয়েছে কিন্তু কোন ফর্মুলা মেনেতা হবে সেটা এখনও পরিষ্কার নয়।কোন নিয়মে বেতন বাড়বে প্রাথমিক শিক্ষকদের তা এখনও পরিষ্কার নয়। শিক্ষকদের অভিযোগ নির্দিষ্ট কোনও ফর্মুলা না দিয়ে এখন বিভিন্ন ডিপিএসসি নোটিশ জারি করছে এবং শিক্ষকদের কাছ থেকে বেতন বৃদ্ধি নিয়ে ডকুমেন্ট এবং লেটার সংগ্রহ করতে নির্দেশ দিয়েছে।

এর মাঝে আবার বেতন বৈষম্য ফারাক নিয়ে আন্দোলন মাথা উঁচু করছে।কারণ যদি নোটিশটি লক্ষ্য করা যায় তাহলে দেখা যাবে যে কারোর বেতন প্রায় 2500 হাজার টাকা বাড়লেও কারোর বাড়ছে প্রায় 5000 টাকা। ফলে কর্মরত শিক্ষকদের মধ্যে বেতন বৈষম্য সৃষ্টি হচ্ছে।

এমনটা কেন হচ্ছে এই প্রশ্ন শিক্ষকদের একাংশের। যদি গত 26 শে জুলাই সরকারি নোটিশ টি লক্ষ্য করা হয় তাহলে দেখা যাবে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের গ্রেড পে 2600 থেকে বেড়ে 3600 হচ্ছে সঙ্গে পরিবর্তন হচ্ছে পে বেন্ড ও pb2 থেকে pb3 হচ্ছে।আবার অপরদিকে প্রশিক্ষণহীনদের গ্রেড পে 2300 থেকে বেড়ে 2900 হচ্ছে কিন্তু pb এর কোনও পরিবর্তন হচ্ছে না। ফলে তাঁদের বেতন ঐ অনুপাতে বাড়ছে না।এর ফলে বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠন “পে প্রোটেকশন” দাবি তুলতে শুরু করেছে।

দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলনের পর প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি ঘোষণা করে রাজ্য সরকার। তার মধ্যে কিছুদিন আগে যে টানা 15 দিনের আন্দোলন এবং 14 দিনের অনশনের পর সরকারি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে রাজ্য সরকার।

আবার অন্য দিকে ট্রেনিং কমপ্লিট সার্টিফিকেট না পাওয়ার জন্য অনেক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা “A” ক্যাটাগরিতে বেতন পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ।তারা জানিয়েছে যে তারা NIOS তাঁদের প্রশিক্ষণের রেজাল্ট গত 22 মে অনলাইনে পাব্লিশ করে কিন্তু তাঁরা এখনও সার্টিফিকেট না পাওয়ার ফলে যেমন তাঁরা “A” ক্যাটাগরি বেতন থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন ঠিক তেমনই সদ্য প্রকাশিত সরকারি বেতন বৃদ্ধি নোটিশ অনুসারে তাঁদের কে প্রশিক্ষণহীন হিসাবে ধরা হবে ফলে এক ঝটকায় তাঁদের বেতন অনেকটাই কমে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

কিন্তু এর মাঝেও কিছু ভালো খবর হচ্ছে তাঁদের সার্টিফিকেট যাতে NIOS দ্রুত দেয় সেই বেপারে কেন্দ্রীয় সরকারকে চিঠি দেওয়া হবে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছে।ফলে তাঁদের সমস্যা দ্রুত সমাধান হবে বলে মনে করা হচ্ছে ।

আপনাদের সুবিধার্থে সাম্ভাব্য একটি CALCULATOR নীচে দেওয়া হল। যে সমস্ত নোটিশ পাবলিশ হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে যে শুধু মাত্র গ্রেড পে বৃদ্ধি কথা বলা হচ্ছে। যদিও বিভিন্ন সোর্স মারফৎ খবর পাওয়া যাচ্ছে যে একটি নির্দিষ্ট “ফর্মুলার(ফিটমেণ্ট ফ্যাক্টর) মেনে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি করা হবে। সেটা দেখতে এখানে ক্লিক করুন এবং শুধু গ্রেড পে অনুসারে বেতন বৃদ্ধি দেখতে  এখানে ক্লিক করুন আপনার বর্ধিত গ্রেড পে SELECT করে বর্তামান বেসিক পে( জুলায় ২০১৯) দিন হিসাব চলে আসবে। কিন্তু আবার বলা বাহুল্য এখনও সরকারি কোনও বেতন বৃদ্ধি বা ফর্মুলা সামনে আসেনি। সবই সাম্ভাভ্য হিসাব।

SHARE THIS NEWS TO YOUR FRIEND

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *