WB Primary Recruitment 2023- পর্ষদের কাছে রিপোর্ট তলব, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া, অনিয়মের অভিযোগ! very big news

0
82

Primary Recruitment 2023- ২০১৪ সালের টেট কে নিয়ে সমস্যা কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না প্রাথমিক পর্ষদের। একের পর এক অভিযোগ এর ভিত্তিতে সমস্যায় পরতে হচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে। কখনও প্রশ্ন ভুল মামলা নিয়ে তো এখনও নাম্বার বিভাজন নিয়ে। এবার এক নতুন অভিযোগ সামনে এসেছে। অভিযোগ, ২০১৬ সালে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় যোগ্যরা বঞ্চিত হয়েছেন। কম নম্বর পাওয়া প্রার্থীদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে! অথচ তাঁদের থেকে একাডেমিকে স্কোর ভালো থাকা সত্ত্বেও মামলাকারীদের বঞ্চিত করা হয়েছে!!

এর আগে এই 2014 টেট কে (Primary Recruitment 2023) নিয়ে আরেক অভিযোগ করে মামলা দায়ের হয় হাইকোর্টে। অভিযোগে দায়ের করে মামলা করা হয় ,অ্যাপটিটিউড টেস্ট এর নম্বর ছাড়ায় নিয়োগ করা হয়েছে। এই অ্যাপটিটিউড টেস্ট নিয়ে আগেই প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে হাইকোর্ট।

একই ইস্যুতে দায়ের হওয়া আর একটি মামলায় মঙ্গলবার ১০৫ জন মামলাকারীর বিভাজনসহ নম্বর সংক্রান্ত রিপোর্ট পেশ করতে পারল না পর্ষদ। আগামী সপ্তাহে পর্ষদকে এই সংক্রান্ত রিপোর্ট জমা করার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

বিচারপতির নির্দেশ, পর্ষদ যদি ২৪ তারিখও রিপোর্ট দিতে ব্যর্থ হয়, সেক্ষেত্রে আদালত প্রয়োজনীয় নির্দেশ দেবে। 

Primary Recruitment 2023

Primary Recruitment 2023
Primary Recruitment 2023

মামলকারীদের তরফ থেকে একাধিক গুরুতর অভিযোগ তোলা হয়েছে! মামলাকারীর আইনজীবীর দাবি, ঐ বছর নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অ্যাকাডেমিক স্কোর কম,এমন প্রায় ৮২৪ জন প্রার্থীকে নিয়োগ দিয়েছে পর্ষদ। এছাড়াও প্রায় ৫২১৬ জন এমন প্রার্থী রয়েছে যাঁদের অ্যাকাডেমিক স্কোর ১১-র নীচে। তাদেরও নিয়োগ দিয়েছে পর্ষদ!

১৩৯ জন মামলকারী এই মামলা দায়ের করেছে কলকাতা হাইকোর্টে! মামলাকারীর আইনজীবীর দাবি,তাঁর মোয়াকেলদের অ্যাকাডেমিক স্কোর নিয়োগ প্রাপ্ত চাকরিপ্রার্থীদের থেকে বেশি হওয়া সত্ত্বেও তাঁরা বঞ্চিত হয়েছেন এই 2014 সালের নিয়োগ প্রক্রিয়ায়!

আরও পড়ুন- WB Primary 5 percentage Additional panel-অতিরিক্তি একটি প্যানেল তৈরির নির্দেশ,২০১৪ সালে টেটের সমস্ত ওএমআর শিট নষ্ট!

কিছুদিন আগেই পর্ষদ একটি পিডিএফ লিস্ট প্রকাশ করেছে! সেখানে প্রায় 1 লক্ষ 26 হাজার চাকরিপ্রার্থীর নম্বর প্রকাশ করে। এর পর পর্ষদ ফের একটি তালিকা তাদের ওয়েসাইটে আপলোড করে সেখানে প্রায় ৪২ হাজার (Primary Recruitment 2023) নিয়োগপ্রাপ্তের নম্বর বিভাজন সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ করে।

ঐ লিস্ট এ কিছু ত্রুটি আছে বলে পর্ষদ আগেই স্বীকার করে নোটিশ জারি করে।পর্ষদ নোটিশ দিয়ে জানায় যে তাঁরা খুব তাড়াতাড়ি ত্রুটি মুক্ত লিস্ট তাদের ওয়েসাইটে আপলোড করবে!আগেই 2014 টেট নিয়ে (Primary Recruitment 2023) মামলকারীরা অভিযোগ করে যে ২০১৬ সালে কোনওরকম অ্যাপটিটিউড টেস্ট ছাড়াই প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ হয়ে গিয়েছে! এই নিয়ে প্রাথমিক পর্ষদের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে কোর্ট।

আরও পড়ুন:- How to challenge WB primary TET 2022 answer key- প্রাথমিক টেটের নাম্বার বাড়াতে,কিভাবে চ্যালেঞ্জ করবেন?

Primary Recruitment 2023
Primary Recruitment 2023

কোর্ট জানতে চেয়েছে ১) সত্যিই অ্যাপটিটিউড টেস্ট নেওয়া হয়নি? ২) আগের অ্যাপটিটিউড টেস্ট এবং এখন 2022 সালে যে অ্যাপটিটিউড টেস্ট নেওয়া হচ্ছে সেটার মধ্যে তফাৎ কি? বা সেটা এখন কিভাবে নেওয়া হচ্ছে? প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের কাছে কোর্ট জবাব তলব করেছে অ্যাপটিটিউড টেস্ট নিয়ে। আগামী সাতদিনের মধ্যে হলফনামা দিয়ে জানাতে হবে পর্ষদ সভাপতিকে যে আদও কোনও অ্যাপটিটিউড টেস্ট নেওয়া হয়েছে কিনা? আর যদি নেওয়া হয়ে থাকে তাহলে সেটা কিভাবে নেওয়া হয়েছে ?

বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এর বেঞ্চে এই মামলা গুলো দায়ের করা হয়েছে। আদালতে মামলাকারীদের আইনজীবী দাবি করেন, প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের জন্য ইন্টারভিউ এবং অ্যাপটিটিউড টেস্ট বাধ্যতামূলক। ইন্টারভিউয়ের জন্য ধার্য নম্বর ৫। অ্যাপটিটিউড টেস্টের ক্ষেত্রেও ধার্য থাকে ৫ নম্বর !

আরও পড়ুন:- WB Teachers Recruitment 2023-very big news! রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে-বড় খবর সামনে এল, জানুয়ারি মাসেই শিক্ষক নিয়োগের মেধা তালিকা!

কিন্তু ঐ বছর অ্যাপটিটিউড টেস্ট ছাড়াই অ্যাকাডেমিক স্কোর কম রয়েছে এমন প্রায় ২৫ হাজার প্রার্থীকে এ বাবদ নম্বর পাইয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ তোলা হয়েছে! এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে আগামী 24শে জানুয়ারি!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here