WB Recruitment Scam 2022- চাকরি ছাড়ার ঢল ! নজরে এবার বেআইনি শিক্ষকদের ট্রান্সফারে! লক্ষ লক্ষ টাকা লেনদেনের অভিযোগ!

0
32

WB Recruitment Scam 2022– চাকরি ছাড়ার ঢল ! নজরে এবার বেআইনি শিক্ষকদের ট্রান্সফারে! লক্ষ লক্ষ টাকা লেনদেনের অভিযোগ! কোলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় আগেই নির্দেশ দিয়েছিলেন, যে বা যারা অনিয়ম (WB Recruitment Scam 2022) করে চাকরি পেয়েছেন,তাঁরা যেন সময় থাকতে চাকরি ছেরে দেন! তাহলে কোর্ট তাঁদের বিরুদ্ধে কোর্ট আর কোনও ব্যবস্থা নেবে না!

আর যদি তাঁরা নিজেরা চাকরি না ছাড়ে তাহলে কোর্ট তাঁদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে!

WB Recruitment Scam 2022

সিবিআই কোর্টে একটি রিপোর্ট জমা দেয়,তার ভিত্তিতে গত ২৮ সেপ্টেম্বর বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় এই অবৈধ (WB Recruitment Scam 2022) চাকরিপ্রাপকদের ৭ নভেম্বরের মধ্যে পদত্যাগের নির্দেশ দেন। এই সময়ের মধ্যে পদত্যাগ না করলে তাঁদের বরখাস্ত করা হবে বলেও জানিয়ে দেন তিনি। শুধু তাই নয়, হুঁশিয়ারির সুরে তিনি বলেন, ভবিষ্যতেও এঁদের সরকারি চাকরি পাওয়ার সব সুযোগ বন্ধ করে দেওয়া হবে।

বিচারপতি নির্দেশ দেন এই চাকরি ছাড়ার নির্দেশ দৈনিক সংবাদ পত্রে প্রকাশিত করতে হবে । সঙ্গে কমিশনের ওয়েবসাইটেও প্রকাশ করতে হবে। কমিশন গত ২৮/০৯/২০২২ তারিখে সেই নির্দেশিকা তাঁদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত করে। নীচে সেই নোটিশ (WB Recruitment Scam 2022) শেয়ার করা হল।

Upper_Primary_New_Interview
WB Recruitment Scam 2022(file image)

নোটিশ(NOTIFICATION) WB Recruitment Scam 2022

Memo. No. 1258/6879(II)/CSSC/ESTT/2022 Date: 28.09.2022

In compliance with the solemn order dated 21.09.2022 in WPA 12270 of 2021 Sabina Yeasmin & ors. – Vs.- The State of West Bengal & Ors. & WPA 12266 of 2021 Sandeep Prasad & Ors. – Vs. The State of West Bengal & Ors., it is hereby notified that the exact count and availability of vacancies created by the removal of wrongly appointed candidates of Group-C & Group-D are being ascertained from the respective Dis.

The Counseling process in compliance to the solemn order dated 21.09.2022 in WPA 12270 of 2021 Sabina Yeasmin & ors. – Vs.- The State of West Bengal & Ors. & WPA12266 of 2021 Sandeep Prasad & Ors. – Vs.- The State of West Bengal & Ors will commence from 07.11.2022 by the Regional School Service Commissions. Secretary West Bengal Central School Service Commission.

সেই কোর্টের অর্ডার কপি ডাউনলোড করতে হলে এখানে ক্লিক করুন(in serial no 121)

যদি নোটিশটি ডাউনলোড করতে চান তাহলে এখানে ক্লিক করুন

চাকরি ছাড়ার ঢল

এবার স্কুল সার্ভিস কমিশন এবং কোর্টের অর্ডারের পর ,পুজোর ছুটি পরার আগেই অনেক স্কুলের Group-C,Group-D কর্মী আর স্কুলে আসছে না বলে খবর প্রকাশিত হয়েছে! অনেক জেলায় স্কুলে আসা বন্ধ করে দিয়েছেন অনেক শিক্ষাকর্মী। ওয়াকিবহাল মহলের মতে পুজোর ছুটি শেষ হলেই অবৈধভাবে নিযুক্ত শিক্ষকদের পদত্যাগের ঢল নামবে। হয়তোবা তাঁদের কিছু অংশ বেআইনিভাবে চাকরি পেয়েছিলেন বলেই ভয়ে স্কুল আসা বন্ধ করে দিয়েছেন! কলকাতা হাইকোর্টের একক বেঞ্চের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বেআইনিভাবে নিযুক্ত শিক্ষকদেরও আগাম পদত্যাগের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

সিবিআই রিপোর্ট জানাচ্ছে, নবম-দশমে ৯৫২ জন, একদশ-দ্বাদশে ৯০৭ জন, গ্রুপ-সি ৩৪৮১ জন এবং গ্রুপ-ডি পর্যায়ে ২৮২৩ জন ওএমআর জালিয়াতির মাধ্যমে চাকরি পেয়েছেন। অর্থাৎ, মোট ৮,১৬৩ জন অনিয়ম করে চাকরি করছেন!

WB_Recruitment_Scam_2022
WB_Recruitment_Scam_2022

অনেক প্রধান শিক্ষকের দাবি, কোর্টের হুঁশিয়ারির পর থেকেই কয়েকদিনের মধ্যে সন্দেহজনকভাবে কয়েকজন শিক্ষাকর্মী স্কুলের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছেন ! এই তালিকায় শুধুমাত্র শিক্ষাকর্মীরা নন , রয়েছেন অনেক শিক্ষকরাও বলে খবর সমানে এসেছে। এখন স্কুল বন্ধ রয়েছে,তাই অক্টোবর মাসের পর এই চাকরি ছাড়ার হিড়িক আরও বাড়বে, কারণ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় এই অবৈধ চাকরিপ্রাপকদের ৭ নভেম্বরের মধ্যে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছিলেন।

ট্রান্সফারে অনিয়ম– অনেকদিন ধরেই বিভিন্ন শিক্ষকরা অভিযোগ জানিয়ে আসছিল যে ট্রান্সফার হচ্ছে তাতে অনেক অনিয়ম রয়েছে! এবার তদন্তকারীরা সংস্থা সিবিআই-ও সেই কথা বলছে! একটি খবরে উঠে এসেছে বেআইনিভাবে ট্রান্সফারের অভিযোগে সিবিআইয়ের তরফে গত ১০ আগস্ট একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। সেখানে অভিযোগ করা হয়েছে নতুন চাকরি পাওয়ার জন্য যে পরিমাণ টাকার লেনদেন হয়েছে, তাকে ছাপিয়ে গিয়েছে চাকরিরত শিক্ষকদের বদলির জন্য লেনদেন! এই ট্রান্সফারের অভিযোগ এসএসসি ও রাজ্যের শিক্ষাদপ্তরের কয়েকজন আধিকারিকের বিরুদ্ধে ওঠেছে বলে খবর সামনে এসেছে।

Upper Primary Recruitment- পুজোর ছুটির জেরে প্রায় ১৫০০ চাকরি প্রার্থীর ইন্টারভিউ শেষ করা যাচ্ছে না বলে খবর সামনে এসেছে! এর কারণ হল ছুটির কারনে পর্যাপ্ত পরমাণ শিক্ষক বা অধ্যাপক পাওয়া যাচ্ছে না, পুরোদমে ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া শেষ করার জন্য! তাই তার জেরে ফের পিছিয়ে দিতে চলেছে উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়া।

কালীপুজোর পর ফের পুরোদমে উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে খবর! স্কুল সার্ভিস কমিশনের আধিকারিকরা আশা করছেন যে ২০২২ সালের নভেম্বর মাসের মধ্যেই চূড়ান্ত মেধাতালিকা প্রস্তুত করতে পারবে কমিশন। ১৪ হাজারেরও বেশি শূন্য পদ রয়েছে এই উচ্চ প্রাথমিক নিয়োগের জন্য।

WBSSC Blank OMR Sheets Scam: ফাঁকা OMR শিট! জালিয়াতি করে স্কুলে চাকরি 8163 জনকে ! নিজে থেকে চাকরি ছাড়ুন!- To Read this news – Click Here

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here