০৭ টি খবর এক নজরে -এপ্রিলের বেতন , একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা,আলু-চাল বিতরণ

0
13

আজ সকালের ৭ টি গুরুত্বপূর্ণ খবর বেরিয়ে এসেছে।দেখে নেওয়া যাক ১৪.০৪.২০২০  এই মুহূর্তের ৭ টি বড় খবর।

 

1.লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির জের,চিন্তায় একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষার্থীরা

 

একদিকে লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি এবং অপর দিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ১০ জুন পর্যন্ত। এই নিয়ে চিন্তায় একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণি এবং বোর্ড পরীক্ষার্থীরা। যদিও শিক্ষা দপ্তর জানিয়েছে,ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থে ইতিবাচক পদক্ষেপ করা হবে। চিন্তার কারণ নেই। 

 লক্ষ লক্ষ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের এখন একটাই প্রশ্ন ,বোর্ডের পরীক্ষার ফল প্রকাশ কবে হবে এবং কবেই বা নতুন স্কুল,কলেজে কলেজের ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু হবে।

কিন্তু এখন যে সমস্ত খবরাখবর বেরিয়ে আসছে তাতে জানা যাচ্ছে যে, পড়ুয়াদের স্বার্থ বজায় রেখে যা কাজ সেটা করা হবে। যখনই এই করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে ফের এই সমস্ত পরে থাকা প্রক্রিয়া শুরু করা হবে । এবং সঙ্গে দ্রুত ফল প্রকাশও হবে। ফলে এই নিয়ে চিন্তা করে কোনও লাভ নেই।এখন রাজ্য সরকারের প্রধান লক্ষ্য,এই মহামারী পরিস্থিতিতে জীবন বাঁচানোই।

অপর দিকে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ একটা নোটিশ জারি করেছে সেটা নীচে দেওয়া হল।

MP-2020-RESULT
MP-2020-RESULT

 

2.বেতন সহ অন্যান্য খরচের বিল ছাড়তে,অফিসে আসতে হবে ট্রেজারি কর্মীদের

 

একদিকে লকডাউন এর মাঝে মাসের শেষে কিভাবে কর্মচারীদের বেতন একাউণ্টে দেওয়া যায় সেই নিয়ে চিন্তা ভাবনা শুরু করে দিয়েছে সংশ্লিষ্ট দপ্তর। এর জন্য এই কাজের সঙ্গে যুক্ত কর্মীদের অফিসে যেতে হতে পারে বলে খবরে উঠে এসেছে।

বেতন পেতে হলে আগে ,বেতন বিলকে অনুমোদন করতে হবে। এবং এই বেতন বিল বেতনের বিল অনুমোদনের জন্য ট্রেজারিতে পাঠাতে হয়। এবার সেই বিলকে অনুমোদন করেন DDO (ড্রয়িং অ্যান্ড ডিসবার্সাল অফিসার) ।

জানা গিয়েছে এপ্রিল মাসের বেতন মাসের শেষের দিকে অথবা মে মাসের প্রথমে কর্মচারীদের একাউণ্টে চলে আসবে।এর জন্য আগে ভাগেই অনেক দপ্তর ট্রেজারিতে পাঠাতে শুরু করে দিয়েছে।

উল্লেখ্য,এর মাঝে নবান্ন এক নোটিশ জারি করেছে, সেখানে করোনা পরিস্থিতিতে ব্যয় সঙ্কোচন করতে হবে বলে পরিষ্কার জানিয়েছে।কীভাবে এই ব্যয় সঙ্কোচন করা হবে, তাও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। নতুন প্রকল্পের কাজ এখন করা যাবে না। একান্ত জরুরি হলে অর্থ দপ্তরের বিশেষ অনুমোদন নিয়ে করতে হবে। 

যদিও বেতন, পেনশন খাতে অবশ্য কোনও নিয়ন্ত্রণ চাপানো হয়নি। কন্যাশ্রী, জয় বাংলা পেনশন সহ বিভিন্ন সামাজিক প্রকল্পের কোনও কাটছাট করা হয়নি। এই প্রকল্প যেমন চলছে সেই ভাবেই চলবে।

 

3.MID DAY MEAL – স্কুলে স্কুলে আলু-চাল বিতরণ

MID DAY MEAL – স্কুলে স্কুলে আলু-চাল বিতরণ নিয়ে শিক্ষকরা এক গুছ প্রশ্ন তুলেছেন । শিক্ষকদের দাবি এই সময়ে কিভাবে বাজারে গিয়ে তাঁরা আলু কিনবেন ? এর পর যাতায়েত করবেন কিভাবে ? এখনতো বাস, ট্রেন সব বন্ধ । সঙ্গে এর ফলে শিক্ষকদের জন্য নির্দিষ্ট যাতায়েত ব্যবস্থা করা দরকার। এর সঙ্গে শিক্ষকদের দাবি স্কুলে জমায়েত হলে সেটা প্রশাসনকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। 

উল্লেখ্য,স্কুলে স্কুলে আলু-চাল বিতরণ নিয়ে ডিআই থেকে এসআই দের ম্যাসেজ আসতে শুরু করে দিয়েছে শিক্ষকদের কাছে। কোথাও কোথাও আবার ২৫ শে এপ্রিলের মধ্যে এই বিতরণ প্রক্রিয়া শেষ করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। এর ফলে চিন্তায় পরেছেন শিক্ষকেরা । কারণ এই পরিস্থিতিতে কিভাবে তাঁরা বাজারে গিয়ে এই আলু কিনে তা বিতরণ করবেন।

যদিও আমাদের সোর্স মারফৎ কিছু আপডেট বেরিয়ে আসছে সেটা হল,শিক্ষা দপ্তর হয়তোবা কিছু দিক নির্দেশ দেবে এই  স্কুলে স্কুলে আলু-চাল বিতরণ নিয়ে।

 

4.উদ্বেগে পরীক্ষার্থীরা, শিক্ষাদপ্তর চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি

 

করোনা-সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউনের মেয়াদ ফের বাড়ায় দেশজুড়ে স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে নিশ্চিত ভাবেই। সেই সঙ্গে নানা বোর্ডের পরীক্ষার ফলপ্রকাশও আটকে।

এরই মধ্যে রাজ্যের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গরমের ছুটি এগিয়ে আনা হয়েছে। সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ১০ জুন পর্যন্ত।রাজ্য জয়েন্টের ফল ঘোষণাও ঝুলে। উচ্চমাধ্যমিকের ফলপ্রকাশ না হওয়া পর্যন্ত জয়েন্টের ফল বেরোবে না বলে খবরে উঠে এসেছে।রাজ্যের শতাধিক ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েক বছর ধরেই পড়ুয়ার অভাবে ধুঁকছে ,এবার এটা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

 

রাজ্য সরকার অনলাইনে ক্লাস শুরু করেছে । সঙ্গে শুরু করেছে বাংলার শিক্ষা পোর্টালে মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্কও দেওয়ার কাজও। এর পাশাপাশি শুরু হয়েছে ভার্চুয়াল ক্লাস। টীভীতে ক্লাস হবে সপ্তাহে ৬ দিন।

 

6.শিক্ষাবর্ষ পরিবর্তনের সম্ভবনা !!

 

এই লকডাউনের পরিস্থিতিতে রাজ্যের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। এবং তা বন্ধ থাকবে আগামী ১০ ই জুন অব্দি । এর মাঝে পঠনপাঠন কিভাবে চলবে এবং বাকি সেমিস্টার গুলো কিভাবে নেওয়া যাবে সেই নিয়ে আলোচনা হয় শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বিশ্ব বিদ্যালয়য়ের উপাচার্যদের। 

 

জুন থেকে স্মাতক এবং আগস্ট থেকে স্মাতকোত্তরর নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হয় সেটা পিছিয়ে সেপ্টেম্বর হতে পারে !!

 

7.Vice President M Venkaiah Naidu – পড়ুয়াদের ধারাবাহিকতা যেন নষ্ট না হয়

 

এখন দেশ জুরে চলছে লকডাউন এমন সময়ে যাতে পড়ুয়াদের ধারাবাহিকতা যেন নষ্ট না হয় সেই জন্য প্রয়োজনে প্রযুক্তির ব্যবহার করতে হবে এমনটাই জানিয়েছে -Vice President M Venkaiah Naidu 

দিল্লি, পুডুচেরি, পাঞ্জাবের উপাচার্য এবং মাখনলাল চতুর্বেদী বিশ্ববিদ্যালয়গুলির একটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এবং ভারতীয় জনপ্রশাসন ইনস্টিটিউটের পরিচালকের সাথে আলাপকালে ভাইস রাষ্ট্রপতি পর্যবেক্ষণ করেছেন যে স্বাভাবিকতা ফিরে আসতে আরও কিছুটা সময় লাগতে পারে এবং তাদের পরিকল্পনাগুলি সম্পর্কে খোঁজখবর নিতে পারেন COVID-19 মহামারী দ্বারা সৃষ্ট ব্যাঘাতের সাথে লড়াই করুন।

 

উপরাষ্ট্রপতি, যিনি আইআইপিএর সভাপতি এবং তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর, প্রতিষ্ঠানগুলিকে শিক্ষার্থীদের কাছে পৌঁছানোর, সহযোগী শিক্ষা এবং স্ব-শিক্ষার প্রচারের আহ্বান জানান। তিনি চেয়েছিলেন যে তারা সমস্ত শিক্ষার্থীর জন্য ইন্টারেক্টিভ লার্নিং নিশ্চিত করার জন্য প্রযুক্তিগত সরঞ্জামগুলি সর্বোত্তমভাবে ব্যবহার করতে পারে। তিনি প্রযুক্তি ব্যবহার করে লকডাউন চলাকালীন শিক্ষাদান এবং শেখার প্রক্রিয়াটির ধারাবাহিকতা নিশ্চিত করেন, তিনি যোগ করেন।

 

 

 

নীচে আরও খবর পড়ুনঃ-

CLICK BELOW TO CALCULATE JULY INCREMENTS AFTER 6TH PAY COMMISSION,SEE HOW MUCH HIKE YOU GET AFTER PAY COMMISSION IN WB↓

July increment 2020 calculator,July increment for Govt Employee/Teachers

০৭ টি খবর এক নজরে – বেতন বন্ধ,ভাতার তালিকা প্রকাশ,বেতন চাওয়া,আলু চাল ডিম বীটড়োণ…এখানে ক্লিক করুন 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here