WB Primary Candidates 2023:প্রাথমিকের ইন্টারভিউয়ে ধৃত ভুয়ো প্রার্থী! পর্ষদ দফতরে ইন্টারভিউতে ভুয়া শংসাপত্র,গ্রেফতার! very big news

0
33

WB Primary Candidates 2023:প্রাথমিকের ইন্টারভিউয়ে ধৃত ভুয়ো প্রার্থী! পর্ষদ (WBBPE) দফতরে ইন্টারভিউতে ভুয়া শংসাপত্র,গ্রেফতার!টেট উত্তীর্ণ ভুয়ো প্রার্থীকে হাতেনাতে ধরল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ! প্রাথমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণের কোর্স ডিএলএড-এর জাল নথি নিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের দফতরে ইন্টারভিউ দিতে হাজির হয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল এক যুবক। পর্ষদের কর্তারা জানিয়েছেন, ভুয়া প্রার্থীর নাম বাপ্পা দেবনাথ। বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটায়। মঙ্গলবার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউ প্রক্রিয়ায় দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা নির্বাচনকারী প্রার্থীদের ডাকা হয়েছিল।

আরও পড়ুন: MAT 1594/2018:বিরাট আপডেট টেট পরীক্ষার্থীদের জন্য! বাড়বে নতুন করে টেট পরীক্ষার্থীদের সংখ্যা!

ভুয়ো এই প্রার্থীকে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের পক্ষ থেকে বিধাননগর পূর্ব থানার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। পর্ষদের পক্ষ থেকে এই ব্যক্তির নামে এফআইআর করা হয়েছে। পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। এর আগে জানুয়ারি মাসে দক্ষিণ দিনাজপুরের ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া চলার সময় এক ভুয়ো প্রার্থী ধরা পড়েছিল। এর পেছনে কোনও চক্র আছে কিনা দেখা হচ্ছে। টেট উত্তীর্ণদের নথি যাচাইয়ের প্রক্রিয়া চলছে। জেলা ভাগ করে নিয়োগের এই প্রক্রিয়া চলছে। মঙ্গলবার দক্ষিণ ২৪ পরগনায় নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছিল। টেট উত্তীর্ণদের নথি খতিয়ে দেখা হচ্ছিল। তখনই নিজের নথি যাচাই করানোর জন্য নিয়ে আসেন বাপ্পা দেবনাথ নামে এক প্রার্থী। তাঁর বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটার মরালডাঙায়।

আরও পড়ুন:

WB Primary Candidates 2023

WB Primary Candidates 2023
WB Primary Candidates 2023

বাপ্পার নথি দেখে আধিকারিকদের সন্দেহ হয়। পরে দেখা যায়, অ্যাডমিট, ভেরিফিকেশন শংসাপত্র থেকে যা নথি তিনি এনেছিলেন, সব ভুয়ো। পর্ষদের তরফে এ নিয়ে প্রার্থীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। বাপ্পা কোনও সঙ্গতিপূর্ণ উত্তর দিতে পারেননি। কবে পরীক্ষা দিয়েছেন ইত্যাদি কোনও প্রশ্নেরই জবাব পাওয়া যায়নি তাঁর কাছ তেকে। তার পরেই এফআইআর দায়ের করা হয়। পর্ষদ সূত্রে খবর, ইন্টারভিউ (WB Primary Candidates 2023 ) চলাকালীন দ্বিতীয়ার্ধে ঘটনাটি ঘটে। এই প্রার্থীর শংসাপত্রের রং, প্রিন্ট ইত্যাদি দেখে যে আধিকারিকেরা তথ্য যাচাই করছিলেন তাঁদের সন্দেহ হয়। জিজ্ঞাসাবাদের পর তাঁকে অন্যান্য তথ্য দেখানোর জন্য বলা হয়। তাতে দেখা যায়, শুধু শংসাপত্র নয়, ডিএলএড কোর্সের অ্যাডমিট কার্ড, রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট, মার্কশিট— সবই জাল।

আরও পড়ুন:

প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের উপসচিব পার্থ কর্মকার বলেন, “আমরা সংশ্লিষ্ট প্রাথমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানে নথিগুলি যাচাইয়ের জন্য পাঠাই। ওই পিটিটিআই থেকে যাচাই করে জানানো হয়, সব নথিই ভুয়া। তারপরে বিধাননগর পূর্ব থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করি। বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করে দেখবে।”

জানা গিয়েছে, ২০১৪ সালের প্রাথমিক টেট উত্তীর্ণ বাপ্পা দেবনাথ। প্রসঙ্গত, এর আগে জানুয়ারির মাসে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের (WB Primary Candidates 2023 ) ইন্টারভিউ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করতে এসে ধরা পড়েছিল এক ভুয়া প্রার্থী। প্রীতম ঘোষ নামের যুবকের কল লেটার তথা ইন্টারভিউতে ডাক পাওয়ার চিঠিটিই জাল ছিল। ঘটনায় ওই যুবক-সহ মোট তিনজনকে গ্রেফতার করেছিল বিধাননগর পূর্ব থানার পুলিশ। এর পেছনে কোনও চক্র আছে কিনা দেখা হচ্ছে। শিক্ষক দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে যখন রাজ্য তোলপাড়, তার মধ্যে এই কাণ্ডকে দুঃসাহসিকই বলছে ওয়াকিবহাল মহল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here